পৃথিবীর গতি ( Movement of the Earth ):-

আপাত দৃষ্টিতে মনে হয় যে পৃথিবী স্থিরভাবে অবস্থান করছে আর সূর্য তার চারদিকে ঘুরছে ।  অতীতের এই ধারণাকে ভুল বলে প্রথম ঘোষণা করেন ভারতীয় জ্যোতির্বিজ্ঞানী আর্যভট্ট এবং গ্রিক বিজ্ঞানী গ্যালিলিও । তাঁরা বলেন সুর্য স্থিরভাবে অবস্থান করছে আর পৃথিবীসহ অন্যান্য গ্রহগুলি সূর্যের চারিদিকে অনবরত ঘুরে চলেছে । পরবর্তীকালে কোপারনিকাস, কেপলার, নিউটন প্রমুখ বিজ্ঞানীরা এই মতবাদকে সমর্থন করেন । সুর্য প্রতিদিন সকলে পূর্বাকাশে উঠে আর সন্ধ্যায় পশ্চিমাকাশে অস্ত যায় ।

প্রকার

    পৃথিবীর গতি দুই প্রকার - (১) আবর্তন বা আহ্নিক গতি (Rotation)  এবং  (২)  পরিক্রমণ বা বার্ষিক গতি ( Revolution )

আবর্তন বা আহ্নিক গতি (Rotation) :-

  পৃথিবী তার অক্ষ বা মেরুদন্ডের উপর ভর করে নির্দিষ্ট গতিতে পশ্চিম থেকে পূর্বে অনবরত ঘুরে চলেছে । অহ্ন শব্দের অর্থ 'দিন' । এই গতির ফলে দিনরাত্রি হয় হয় বলে একে আবর্তন বা আহ্নিক গতি বলে।

সৌরদিন (Solar day):- 

সূর্যকে সামনে রেখে পৃথিবী তার অক্ষের উপর ভর করে সম্পূর্ণরূপে একবার পাক খেতে ২৪ ঘন্টা সময় নেয় ।  একে 'সৌরদিন' বলে ।

নাক্ষত্রদিন(Solar day):- 

সুর্য ছাড়া অন্য কোনো নক্ষত্রের হিসাবে পৃথিবীর সম্পূর্ণ একবার আবর্তনের সময় লাগে ২৩ ঘন্টা ৫৬ মিনিট ৪ সেকেন্ড একে নাক্ষত্রদিন(Solar day) বলে ।