দ্বাদশ শ্রেণীর প্রশ্নোত্তর【 2022】 সাজেশন ।। আরোহ অনুমানের স্বরূপ (প্রথম অধ্যায়) ।। উচ্চ মাধ্যমিক দর্শন MCQ & SAQ

 ১) অনুমান কে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ও কি কি ?

অনুমান কে দুটি ভাগে ভাগ করা যায়। যথা-

(i) আরোহ অনুমান 

(ii) অবরোহ অনুমান 

২) আরোহ অনুমান কাকে বলে?

কয়েকটি বিশেষ সিদ্ধান্ত পর্যবেক্ষণ করে প্রকৃতির এক রূপতা নীতি ও কার্যকারণ নীতির উপর ভিত্তি করে যে সামান্য সংশ্লেষক বচন প্রতিষ্ঠা করা হয় তাকে আরোহ অনুমান বলে।

৩) আরোহ অনুমানের আকারগত ভিত্তি কি?

প্রকৃতির একরূপতা নীতি ও কার্যকারণ নীতি ।

৪) আরোহ অনুমানের বস্তুগত ভিত্তি কী?

পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষণ ।

5) আরোহ অনুমানের দুটি বৈশিষ্ট্য লেখ ?

(i) সিদ্ধান্তটি সবসময় একাধিক আশ্রয় বাক্য থেকে নিঃসৃত হয়, কিন্তু অনিবার্যভাবে নিঃসৃত হয় না ।

(ii) সিদ্ধান্তের ব্যাপকতা সবসময় আশ্রয় বাক্যকে অতিক্রম করে।

৬) বৈজ্ঞানিক আরোহ অনুমানের সিদ্ধান্ত কেমন বাক্য হবে ?

সামান্য সংশ্লেষক ।

৭) আরোহমূলক লাফ কাকে বলে?

বিশেষ আশ্রয় বাক্য থেকে সামান্য সিদ্ধান্তে আসা হল আরোহ মূলক লাফ।

৮) বৈজ্ঞানিক আরোহের লক্ষ্য কি ?

কার্যকারণ সমন্ধ নির্ণয় করা।

৯) অবৈজ্ঞানিক আরোহকে অপূর্ণ গণনামূলক আরোহ অনুমান বলে কেন ?

এখানে মাত্র কয়েকটি বিশেষ সিদ্ধান্ত পর্যবেক্ষণ করে সার্বিক সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যায় তাই এটিকে অপূর্ণ গণনামূলক আরোহ অনুমান বলে।

১০) অবৈজ্ঞানিক আরোহ অনুমানের লৌকিক আরোহ অনুমান বলে কেন ?

এই অনুমান কার্যকারণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করার পরিবর্তে সাধারণ মানুষের মতামতকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয় বলে একে  লৌকিক আরোহ অনুমান বলে ।

১১) আরোহের সমস্যা কী?

আরোহের সমস্যা হলে কিভাবে সামান্যীকরণ বৈধ হবে তা নির্ণয় করা।

১২) অবৈজ্ঞানিক আরোহের ভিত্তি কী?

অবাধ ও বাতিক্রমহীন অভিজ্ঞতা।

১৩) উপমা যুক্তির সিদ্ধান্ত সম্ভাব্য কেন ?

 → উপমা যুক্তির কার্যকারণ সম্বন্ধ নির্ণয়ের চেষ্টা করেনা তাই এর সিদ্ধান্ত সম্ভাব্য হয় ।

১৪) আরোহ অনুমান কোন ধরনের শর্ততা থাকে ?

বস্তুগত শর্ততা থাকে।

১৫) লৌকিক বা অবৈজ্ঞানিক বা অপূর্ণ গণনামূলক আরোহ অনুমান কাকে বলে ?

কার্যকারণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা না করে কেবলমাত্র অবাধ অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে বিশেষ বিশেষ দৃষ্টান্ত থেকে সামান্য সংশ্লেষক বচনে উপনীত হওয়ার প্রক্রিয়াকে, লৌকিক বা অবৈজ্ঞানিক বা অপূর্ণ গণনামূলক আরোহ অনুমান ।

১৬) আরোহ অনুমানে আশ্রয় বাক্য ও সিদ্ধান্তে মধ্যে কিসের সম্পর্ক থাকে না ?

প্রশক্তি সম্ভাব্য থাকে না।

১৭) উপমা যুক্তির ভিত্তি কী?

সাদৃশ্য ।

১৮) সামান্যীকরণ প্রক্রিয়া কী?

যে পদ্ধতির সাহায্যে সমজাতীয় কয়েকটি বিশেষ দৃষ্টান্ত পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষণ করে ওই জাতির অন্তর্গত সব বস্তু সম্বন্ধে একটি সার্বিক সংশ্লেষক বচন প্রতিষ্ঠা করা হয়, সেই পদ্ধতিকে সামান্যীকরণ প্রক্রিয়া বলে ।

১৯. আরোহমূলক লাভ বা ঝাপ কোন আরোহ অনুমানে দেখা যায় ?

বৈজ্ঞানিক আরোহ অনুমানে।

২০) বৈজ্ঞানিক আরোহ অনুমানের একটি দৃষ্টান্ত দাও ?

তামা কে উত্তপ্ত করলে আয়তন বৃদ্ধি পায়, লোহা কে উত্তপ্ত করলে আয়তন বৃদ্ধি পায়, সোনা কে উত্তপ্ত করলে আয়তন বৃদ্ধি পায়, রূপকার উত্তপ্ত করলে আয়তন বৃদ্ধি পায়।

. ‘ . সকল ধাতু কে উত্তপ্ত করলে আয়তন বৃদ্ধি পাই।

২১) কাকে আরোহ অনুমানের আবশ্য স্বীকার্য সত্য বলা হয় ?

প্রকৃতির একরূপতা নীতি ও কার্যকারণ নীতিকে  আরোহ অনুমানের আবশ্য স্বীকার্য সত্য বলা হয়।

২২) কে বা কারা আরোহমূলক লাফ কে আরোহ অনুমানের মূল বৈশিষ্ট্য বলেছেন ?

মিল ও বেইন ।

23) সাদৃশ্য মূলক আরোহ অনুমান বা উপমা যুক্তি কাকে বলে ?

দুটি বস্তুর মধ্যে কোন কোন বিষয়ে সাদৃশ্য লক্ষ্য করে তারই ভিত্তিতে যখন উভয়ের মধ্যে অন্য কোন সাদৃশ্যের অনুমান করা হয় তখন তাকে উপমা যুক্তি বা সাদৃশ্যমূলক আরােহ অনুমান বলে ।

২৪. উপমা যুক্তির একটি দৃষ্টান্ত দাও।

পৃথিবীর মতো মঙ্গল গ্রহও সূর্যের চারদিকে ঘোরে।

 পৃথিবীর মতো মঙ্গল গ্রহও সূর্যের আলোয় আলোকিত হয় ।

 উভয় গ্রহের জলবায়ু ও তাপমাত্রা একই রকমের। উভয় গ্রহে মাটি ও সমুদ্র আছে ।

পৃথিবীতে প্রাণ আছে,

. ‘ . মঙ্গল গ্রহে প্রাণ আছে ।

২৫) উপমা যুক্তির একটি মূল্যায়ের মান দ্ন্দ উল্লেখ করো।

উপমা যুক্তির ক্ষেত্রে জ্ঞ‍্যাত সাদৃশ্যের সংখ্যা যত বেশি হবে উপমা যুক্তির সিদ্ধান্তের সম্ভাবতা তত বেশি হবে ।

২৬) কখন উপমা যুক্তির সিদ্ধান্ত সত্য হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে ?

যুক্তিবাক্যে উল্লেখিত দৃষ্টান্তের মধ্যে সাদৃশ্য যদি প্রসঙ্গিক হয় তাহলে সিদ্ধান্ত সত্য হওয়ার সম্ভাবনা বেশি হবে ।

২৭) উপমা যুক্তিকে কটি ভাগে ভাগ করা যায় ও কী কী ?

দুটি।

→(i)  ভালো উপমা যুক্তি।

 (ii) মন্দ উপমা যুক্তি।

২৮) ভালো উপমা যুক্তি কাকে বলে ?

যে উপমা যুক্তিকে অধিক সংখ্যক প্রাসঙ্গিক ও গুরুত্বপূর্ণ সাদৃশ্যের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত করা হয়, তাকে ভালো উপমা যুক্তি বলে ।

উদাহরণ:- মানুষের মতো পশুদেরও হৃদয় আছে।  সুতরাং মানুষের মত পশুদেরও বেদনা বোধ আছে।

২৯) মন্দ উপমা যুক্তি কাকে বলে ?

যে উপমা যুক্তি সাদৃশ্যের গুরুত্ব ও প্রাসঙ্গিকতা অপেক্ষা কম বা বলা যায় সাদৃশ্য গুলি বেশিরভাগই অপ্রাসঙ্গিক তাকে মন্দ উপমা যুক্তি বলে।

উদাহরণ:- মানুষের মত পশুদের হাত, পা, চোখ, নাক, কান ইত্যাদি আছে। সুতরাং মানুষের মতো পশুদের ও চিন্তা শক্তি আছে।

আরো পড়ুন

1 thought on “দ্বাদশ শ্রেণীর প্রশ্নোত্তর【 2022】 সাজেশন ।। আরোহ অনুমানের স্বরূপ (প্রথম অধ্যায়) ।। উচ্চ মাধ্যমিক দর্শন MCQ & SAQ”

Leave a Comment