Write after Gieve Patel a note on the power and strength of a tree to withstand man’s cruelty

QUSTION

How does the poet describe the killing of a tree in the poem,’on KIlling a Tree’? 

Or

 How can the tree be killed in’On Killing a Tree’?

Or

How is the life- force of the tree described in the poem’On Killing a Tree’?

Or

Write after Gieve Patel a note on the power and strength of a tree to withstand man’s cruelty.

ANS

→The poet shows how a tree is tortured for complete destruction. Killing a tree is a difficult task. It takes much time and effort. Neither a simple jab of the knife nor hacking and chopping can kill a tree. It is not so easy a task because the tree has grown slowly, consuming the earth and absorbing sunlight, air and water. It is firmly fixed with its roots anchored in the earth. After hacking and chopping, new twigs sprout and grow to former size. So, in order to kill a tree it has to be uprooted. It has to be roped, tied and snapped out. It has to be pulled out entirely from the earth- cave. After uprooting, the root has to be exposed to sunlight and air so that it scorches, chokes, browns, hardens, twists and finally withers. Thus man has to take up and more and more violent steps to complete the process of killing a tree.

বাংলা অনুবাদ

প্রশ্ন

 কবি ‘On Kiling a Tree’ কবিতায় কীভাবে একটি গাছকে মেরে ফেলার বর্ণনা দিয়েছেন?

অথবা

‘On Killing a Tree’ কবিতায় গাছটিকে কীভাবে হত্যা করা যায়?

অথবা

 ‘On Killing a Tree’ কবিতায় কীভাবে গাছের প্রাণশক্তির বর্ণনা করা হয়েছে?

অথবা

জীভ প্যাটেলের অনুসরণে মানুষের নিষ্ঠুরতা সহ্য করার জন্য গাছের শক্তি ও ক্ষমতা সম্পর্কে সংক্ষেপে লেখাে।

উত্তর

→কবি দেখিয়েছেন সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করার জন্য কেমনভাবে একটি গাছের ওপর অত্যাচার করা হয়। একটি গাছকে মেরে ফেলা বেশ কঠিন কাজ। এর জন্য যথেষ্ট সময় ও শ্রম দরকার। ছুরির সাধারণ আঘাত কিংবা প্রবল আঘাতে টুকরাে টুকরাে করে কেটে ফেললেই গাছকে মেরে ফেলা যায় না। এটা অত সহজ কাজ নয় কারণ গাছটি পৃথিবীর পুষ্টিকর উপাদান নিয়ে এবং সূর্যালােক, বাতাস ও জল আত্মস্থ করে ধীরে ধীরে বেড়ে উঠেছে। শিকড়ের সাহায্যে পৃথিবীর বুকে এটি দৃঢ়ভাবে সংযুক্ত। একে প্রবল আঘাতে কেটে টুকরাে টুকরাে করলে আবার নতুন পাতা গজিয়ে আগের চেহারার গাছে পরিণত হবে। সেজন্য একটি গাছকে মেরে ফেলতে হলে একে সমূলে উপড়ে ফেলতে হবে। এটিতে দড়ি জড়িয়ে বেঁধে উপড়ে ফেলতে হবে। পৃথিবীর গহ্বর থেকে এটিকে সম্পূর্ণভাবে বের করে আনতে হবে। উপড়ে ফেলার পর এর শিকড়টাকে ফেলে রাখতে হবে রােদে খােলা বাতাসে, যাতে এটি ঝলসে যায়, শ্বাসরুদ্ধ হয়, বাদামি হয়, শক্ত হয়, দুমড়ে- মুচড়ে যায় এবং শেষপর্যন্ত রসহীন শুকনাে হয়ে ওঠে। এভাবে মানুষকে আরও বেশি হিংস্র পদক্ষেপ নিতে হয় গাছকে মেরে ফেলার পদ্ধতি সম্পূর্ণ করার জন্য।

Leave a Comment